ডেঙ্গু থেকে ফিরে আসা (নিজের অভিজ্ঞতা থেকে)

তাহমিনা ইয়াসমিন ১৯ নভেম্বর,২০১৯ ৯৮ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ ()

গত মাসের ২৮ তারিখ হঠাৎ এলোমেলো হয়ে গেলো গতিটা। নির্দিষ্ট রুটিনের বাইরে গিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত ভাবে City Hospital এ ৮দিনের বাস হলো। 

হাসপাতালে ভর্তির পর সম্ভবত ৩০.৭.১৯ সকালে মেয়েটা ওর বাবা আসার পর নিজে একটু ফ্রেশ হতে বাসায় চলে যায়। কেবিনে আমি শুধু ওর বাবার সাথে ছিলাম তখন।

হঠাৎ করেই হয়তো দুনিয়াটা দুলে উঠেছিল, আমি ওর বাবার কোমর ধরে  বললাম, আমার মাথাটা চেপে ধরো জোরে। সব কিছু ঝাপসা হয়ে আসছিলো, জিনিস পত্র ১টা থেকে ২টা হয়ে সব দুলছিল। সময়টা হয়তো অল্প কিছু সময়ের, পরক্ষণেই মনেহলো শরীরে কেউ পানি ঢেলে দিয়েছে। আমি অবসন্ন অবস্থায় বিছানায় শুয়ে পরলাম। তার কিছুক্ষণ পরই ডাক্তার আসলো, আমার প্রেসার দেখলো ৮০-৪০। 

ডাক্তারের এক্সপ্রেশন দেখে মনে হলো আমি সিরিয়াস কোন রোগী।

কিন্তু আমি ব্যাপারটার গুরুত্ব বুঝি নাই। বারবার সবার নিষেধ সত্বেও একা বাথরুমে যাওয়া এবং দরজা আটকে ফেলতাম। এবং এইরকম বাথরুমে থাকা অবস্থাতে আবার আমার ঐরকম পরিস্থিতি হয়েছিল যা আমি অন্য কারোর সাথে তখন শেয়ার করিনি।

পরবর্তীতে পেটে এবং সারা শরিরে পানি চলে আসে। কুলি করলেই মুখভর্তি করে বিল্ডিং হলো কয়েকবার, এটাও আমি গুরুত্বহীন ভেবে শেয়ার করিনি। 


আজ যখন বাসায় এসে ফেসবুকে ডেঙ্গু নিয়ে নানান পোস্ট দেখছি তখন মনে হচ্ছে কত বোকার মত আচরণ করেছি।

মতামত দিন