চিতল মাছ পরিচিতি ও চাষ পদ্ধতি- লাভ ও সম্ভাবনা। চিতল মাছ পরিচিতি ও চাষ পদ্ধতি- লাভ ও সম্ভাবনা।।

মোঃ ময়দুল ইসলাম ২৯ জুন,২০২২ ২১ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ ()

চিতল মাছ কাপ জাতীয় মাছের সাথে মিশ্র ভাবে চাষ করা যায়। প্রতি শতাংশে ৫ থেকে ৬ টি চিতল মাছের পোনা ছাড়া যাবে। চিতল মাছ যেহেতু ছোট ছোট মাছের পোনা খেয়ে বেচে থাকে তাই চিতল মাছের কালচার পুকুরে খাবারের জন্য তেলাপিয়া মাছের ব্রুড মাছ ছাড়তে হবে । একটি চিতল এর বিপরীতে ৫ -৭ টি তেলাপিয়া মাছের ব্রুড ছাড়তে হবে ।

অত্যন্ত ভালজনক চিতল মাছ চাষ পদ্ধতি:--------

৩ থেকে ৬ ইঞ্চি সাইজের চিতল মাছ কালচার পুকুরে ছাড়তে হবে। চিতল মাছ কাপ জাতীয় মাছের সাথে মিশ্র ভাবে চাষ করা যায়। প্রতি শতাংশে ৫ থেকে ৬ টি চিতল মাছের পোনা ছাড়া যাবে। চিতল মাছ যেহেতু ছোট ছোট মাছের পোনা খেয়ে বেচে থাকে তাই চিতল মাছের কালচার পুকুরে খাবারের জন্য তেলাপিয়া মাছের ব্রুড মাছ ছাড়তে হবে । একটি চিতল এর বিপরীতে ৫ -৭ টি তেলাপিয়া মাছের ব্রুড ছাড়তে হবে । প্রতি শতাংশে ৫ টি চিতল মাছ ছাড়লে এর জন্য ৩৫ থেকে ৪০ টি তেলাপিয়া মাছের ব্রুড ছাড়তে হবে । তেলাপিয়া মাছে বাচ্চা দিবে আর চিতল মাছ সেই গুলো খাবে। রুই কাতল মাছের সাথে চিতল মাছ চাষ করা যাবে।

চিতল মাছ চাষে আয়: চিতল মাছ চাষের জন্য সর্বদায় বড় পুকুর বা ঘের বা বিল নির্বাচন করা উচিত কারন যত বড় জায়গা হবে চিতল চাষে তত লাভ হবে । বড় জায়গাতে চিতল মাছ দ্রুত বৃদ্ধি পায় এবং লাভ বেশি হয়। বড় জায়গাতে একটি চিতল মাছ ১ বছরে কমপক্ষে ২ থেকে ৩ কেজি ওজন হয়। ধরে নিলাম আপনি ১০০০ শতাংশ (১০ একর) একটি জলাশয়ে কাপ জাতীয় মাছের সাথে চিতল মাছ চাষ করবেন তাহলে প্রতি শতাংশে ৬ টি করে চিতলের পোনা ছাড়ছেন মোট ৬০০০ টি । ৬ হাজার টি মাছ ছাড়লে ১ বছর পরে ৫ থেকে সাড়ে ৫ হাজার টি চিতল মাছ পাওয়া যাবে । যদি ৫০০০ টি চিতল মাছ পাওয়া যায় এবং প্রতি টির ওজন ২ কেজি প্লাজ। প্রতি কেজি ৫০০ টাকা হারে চিতল মাছ বিক্রয় করা যায় বড় মাছ হলে আর বেশি বিক্রয় করা যায়।
তাহলে প্রতিটি মাছের বিক্রয়মূল্য হবে ১০০০ টাকা থেকে ৮০০ টাকা।
মোট বিক্রয় হবে (৫০০০× ৮০০) = ৪০,০০,০০০ (৪০ লক্ষ টাকা)।
শুধু চিতল চাষ করেই এই পরিমাণ টাকা আয় করা যাবে ।
প্রতি পিচ ভাল মানের চিতল মাছের বাচ্চার ক্রয়মূল্য ২৫ থেকে ৪০ টাকার মত লাগবে।
আপনার খামারের অনন্যা খরচ কাপ জাতীয় ও তেলাপিয়া মাছ বিক্রয় করে উঠে যাবে। তাই চিতল চাষ করল খরচ কম হয়।
রোগ ব্যবস্থাপনা : চিতল মাছের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক বেশি তাই মিশ্র চাষে রোগ বালাই নাই বললেই চলে । প্রয়োজনীয় পরার্মশ :
১.খামারের পাড় ভাল হতে হবে যাতে বর্ষা মৌসুমে ডুবে না যায়।
২.বিকল্প পানি সেচের ব্যবস্থা রাখতে হবে ।
৩. চিতল মাছ কাপ জাতীয় মাছের সাথে চাষ করা যায় কারন চিতল মাছ রাক্ষুসে স্বভারের হলেও বড় মাছ খায় না তারা কেবল ছোট ছোট মাছের পোনা খেয়ে বেচে থাকে ।
৪. চিতল মাছের খামারে পর্যাপ্ত ছোট মাছ নিশ্চিত করতে হবে তা না হল চিতল মাছ বড় হবে না।
৫. চিতল মাছের খামারে ছোট ছোট মাছের ঘাটতি হলে আলাদা রুই বা মৃগেল মাছ নার্সারি করে চিতলের খাদ্য হিসাবে দিতে হবে ।
৭. নিজের মাছের ঘের না থাকলে ভাড়া নিয়ে মাছ চাষ করতে পারেন ।৬. সঠিক জাতের সুস্থ চিতল মাছের পোনা মজুদ করু মাছ চাষ নিশ্চিত আয় হবে।

বি:দ্র: - স্বনামধন্য হ্যাচারী থেকে রেণু,পোনা সংগ্রহ করে নিজে লাভবান হন।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
লুৎফর রহমান
৩০ জুন, ২০২২ ০৬:২৪ অপরাহ্ণ

Thanks for nice content and best wishes including full ratings. Please give your like, comments and ratings to watch my innovation story-2 https://www.teachers.gov.bd/content/details/1275215 Presentation link 83: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1276919 Blog link 508: https://www.teachers.gov.bd/blog-details/649463 Publication link 23: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1277141


জামিলা খাতুন
৩০ জুন, ২০২২ ০২:৪৭ অপরাহ্ণ

লাইক ও রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ প্রত্যাশা করছি।


শেখ মোহাম্মদ আজিজুল হক
৩০ জুন, ২০২২ ০৯:০৬ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর তথ্য নির্ভর লেখার জন্য ধন্যবাদ।


মোছাঃ নাইচ আকতার
৩০ জুন, ২০২২ ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ণ

শুভকামনা রইল


কোহিনুর খানম
৩০ জুন, ২০২২ ০৭:০০ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা।


জাহিদুল ইসলাম
৩০ জুন, ২০২২ ১২:৪৬ পূর্বাহ্ণ

আসসালামু আলাইকুম/আদাব। লাইক ও রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ প্রত্যাশা করছি। কনটেন্ট লিংক: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1273517


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৯ জুন, ২০২২ ১১:২৭ অপরাহ্ণ

চিতল মাছ পরিচিতি ও চাষ পদ্ধতি- লাভ ও সম্ভাবনা।