শিক্ষায় অগ্রযাত্রা

পায়রাবন্দ

মোছাঃ লাকী আখতার পারভীন ২৯ জুলাই,২০২১ ১৪ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ রেটিং ( )

পায়রাবন্দ

রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার একটি গ্রামের নাম পায়রাবন্দ (Pairaband)। এই পায়রাবন্দ গ্রামে ১৮৮০ সালের ৯ ডিসেম্বর বাঙালি নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়া (রোকেয়া খাতুন) জন্মগ্রহণ করেন। বেগম রোকেয়ার পিতা জহীরুদ্দিন মোহাম্মদ আবু আলী হায়দার সাবের ছিলেন একজন সম্ভ্রান্ত ভূস্বামী। তাঁর মায়ের নাম রাহাতুন্নেসা সাবেরা চৌধুরানী। তৎকালীন সমাজব্যবস্থার সাথে মিল রেখে বেগম রোকেয়াকে নিজ গৃহে আরবী ও উর্দু শেখানো হত। বেগম রোকেয়া তাঁর বড় ভাই ইব্রাহীম সাবেরের কাছে গোপনে বাংলা ও ইংরেজি শিখতে শুরু করেন। ১৮৯৬ সালে বেগম রোকেয়ার ভাগলপুরের ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেনের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন মুক্তমনা ছিলেন এবং তিনি বেগম রোকেয়াকে লেখালেখি করতে উৎসাহ দিতেন। ১৯০২ সালে পিপাসা নামের একটি গল্পের মাধ্যমে সাহিত্যজগতে পদার্পণ করেন এই মহীয়সী নারী।

বেগম রোকেয়ার বাড়ির পাশে সরকারী ব্যবস্থাপনায় ৩.১৫ একর ভূমির উপর বেগম রোকেয়া স্মৃতিকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এখানে আছে নান্দ্যনিক বাগান, অফিস ভবন, ৪ তলা ডরমেটরি ভবন, গবেষণা কক্ষ, লাইব্রেরি, আধুনিক গেস্ট হাউজ এবং পিতলের তৈরী বেগম রোকেয়ার ভাষ্কর্য। এছাড়া এখানে বিকেএমই নামের ট্রেনিং সেন্টারে তরুণদের কর্মসংস্থানে সহায়ক বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। তবে বেগম রোকেয়ার পৈত্রিক বাড়িতে বর্তমানে ইটের দেয়ালের গাথুনি ছাড়া কিছুই আর অবশিষ্ট নেই।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোঃ রওশন জামিল
২৯ জুলাই, ২০২১ ০৬:০১ অপরাহ্ণ

কন্টেন্ট আপলোড করে প্রিয় শিক্ষক বাতায়ন'কে সমৃদ্ধ করার জন্য ধন্যবাদ। শুভ কামনা রইলো।।