খবর-দার

করোনার সত্য-মিথ্যা জেনে নিন

মোঃ সোহরাব হুসাইন ২৬ মার্চ,২০২০ ১৪ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৪.৭৫ রেটিং ( )

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। এই সুযোগে অনেক ভুল তথ্যও ছড়াচ্ছে। মনে রাখতে হবে, করোনা প্রতিরোধে সচেতনতাই সবচেয়ে জরুরি। করোনা নিয়ে ছড়ানো ভুল তথ্যগুলোর ক্ষেত্রেও এই কথা প্রযোজ্য। ভাইরাসটি নতুন। এ নিয়ে এখন গবেষণা চলছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা সিডিসি করোনা বিষয়ে কী করবেন, কী করবেন না, তা তুলে ধরেছে। বুধবার (২৫ মার্চ) প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত একে নিবন্ধে এ তথ্য জানা যায়। নিবন্ধের বিস্তারিত-

১. একটু পরপর পানি, লবণ বা ভিনেগার মিশ্রিত পানি বা গরম পানি পান করলে কিংবা গলা ভেজালে অথবা রসুন মুখে রাখলে করোনা গলা থেকে ফুসফুসে যায় না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ ধরনের একটি তথ্য ঘুরছে। এই তথ্যের কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।

২. গরমে করোনার সংক্রমণ হবে না, এই ধারণাও ভুল। আবহাওয়া ও পরিবেশের তাপমাত্রার সঙ্গে সংক্রমণের কোনো সম্পর্ক নেই। করোনা যে কোনো তাপমাত্রায় সংক্রমণ ঘটাতে পারে।

৩. থার্মাল স্ক্যানার কেবল শরীরের তাপমাত্রা নির্ণয় করে। এর মাধ্যমে করোনার সংক্রমণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায় না। কাজেই থার্মাল স্ক্যানারে ধরা না পড়লে করোনা হয়নি, এমন মনে করা ঠিক নয়। সাধারণত উপসর্গ দেখা দিতে ২ থেকে ১০ দিন সময় লাগে। তাই ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিদের অন্তত ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

৪. করোনার প্রতিষেধক: মানুষের ব্যবহারের জন্য স্বীকৃত ভ্যাকসিন বা প্রতিষেধক তৈরি হতে বেশ সময় লাগে। ২০০৩ খ্রিষ্টাব্দে ছড়ানো সার্সের প্রতিষেধক তৈরি করতে ২০ মাস এবং আফ্রিকার দেশগুলোয় ছড়ানো ইবোলার প্রতিষেধক তৈরি করতে ৭ বছরের বেশি সময় লেগেছে। করোনার প্রতিষেধক তৈরির জোর চেষ্টা চলছে। তবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত প্রতিষেধক তৈরি হতে কিছুটা সময় লাগবে অবশ্যই।

৫. ফেস মাস্কে করোনা প্রতিরোধ করা যায়, এটিও একটি ভুল ধারণা। সাধারণ সার্জিক্যাল মাস্ক পরার পর মুখ ও মাস্কের মধ্যে বেশ খানিকটা ফাঁকা থাকে, যা ড্রপলেট (মুখ নিঃসৃত ক্ষুদ্র তরল কণা) প্রবেশের জন্য যথেষ্ট। এন-৯৫ মাস্ক বাতাসের ৯৫ শতাংশ শূন্য দশমিক ৩ মাইক্রন বা তার চেয়ে বড় কণা আটকাতে পারে। তার মানে এই নয় যে এটি পরলে করোনা প্রতিরোধ করা যাবে। কোভিড-১৯ রোগী এবং রোগীর পরিচর্যাকারী, সেবাদানকারী, হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্সদের মাস্ক পরা জরুরি।

বারবার হাত ধোয়া ও হাত নাকে-মুখে-চোখে না লাগানোই সবচেয়ে ভালো প্রতিরোধ। হাত ধোয়ার ক্ষেত্রে সাবান-পানি সবচেয়ে কার্যকর। করোনা ভাইরাসের বাইরের আবরণটি চর্বির। কাজেই ক্ষারযুক্ত যে কোনো সাধারণ সাবান এ ক্ষেত্রে কার্যকর। কারণ, ক্ষারে চর্বির আবরণটি ভেঙে যায়, হাত ভাইরাসমুক্ত হয়। সাবান-পানি না থাকলে অ্যান্টিসেপটিক হ্যান্ডওয়াশ বা অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করতে পারেন।

করোনা ছড়ায় যেভাবে: সংক্রমিত ব্যক্তির শ্বাসপ্রশ্বাস, হাঁচি-কাশি কিংবা কথা বলার সময় মুখ থেকে নিঃসৃত তরল কণা বা ড্রপলেটের মাধ্যমে বেরিয়ে এসে যে কোনো বস্তু বা তলে লেগে যায় করোনা ভাইরাস। সে জায়গা স্পর্শ করলে হাত থেকে ভাইরাসটি নাক-চোখ-মুখ দিয়ে সুস্থ ব্যক্তিও আক্রান্ত হতে পারে। তাই পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখা জরুরি। অন্তত তিন ফুট দূরে থাকতে হবে।

ডা. তানজিনা হোসেন : সহযোগী অধ্যাপক, এন্ডোক্রাইনোলজি অ্যান্ড মেটাবলিজম, গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোঃ মেরাজুল ইসলাম
২৭ মার্চ, ২০২০ ০৮:৫৬ অপরাহ্ণ

ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন । আপনি ভালো থাকলে ভালো থাকবে দেশ । চমৎকার নির্মাণের জন্য লাইক, কমেন্ট ও রেটিংসহ শুভেচ্ছা ও ভালবাসা রইল । আমার বাতায়ন বাড়িতে আমন্ত্রণ রইল ।


বিপ্লব কুমার সরকার
২৭ মার্চ, ২০২০ ১২:৪৮ অপরাহ্ণ

লাইক, রেটিং সহ শুভ কামনা রইল। আমার কনটেন্ট দেখে লাইক, কমেন্ট ও রেটিং দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ রইল ।


আব্দুল্লাহ আত তারিক
২৭ মার্চ, ২০২০ ০৯:৩৮ পূর্বাহ্ণ

ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন । আপনি ভালো থাকলে ভালো থাকবে দেশ । চমৎকার নির্মাণের জন্য লাইক, কমেন্ট ও রেটিংসহ শুভেচ্ছা ও ভালবাসা রইল । আমার বাতায়ন বাড়িতে আমন্ত্রণ রইল । আমার উপস্থাপন করা নবম-দশম শ্রেণির সাহিত্য কণিকা বইয়ের কবি সৈয়দ শামসুল হকের লেখা আমার পরিচয় কবিতাটি দেখার জন্য নিবেদন রইলো। লিংক - https://teachers.gov.bd/content/details/544114


গোলাম ফারুক
২৭ মার্চ, ২০২০ ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা, শ্রদ্ধেয় প্যাডাগজি স্যার , রেটার মহোদয় , সেরা কনটেন্ট নির্মাতাগণ , সেরা উদ্ভাবক , সেরা নেতৃত্ব ,বাতায়নের সকল স্যার- ম্যামগণ দয়া করে আমার কন্টেন্ট দেখে মতামত ও পরামর্শ দিবেন। ভালো লাগলে লাইক এবং রেটিং দিবেন। সকলকে ধন্যবাদ । গোলাম ফারুক ICT4E জেলা অ্যাম্বাসেডর ,জামাল পুর । বাতায়ন লিঙ্ক https://www.teachers.gov.bd/profile/glm.farukict


মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম
২৬ মার্চ, ২০২০ ১১:৩৪ অপরাহ্ণ

চমৎকার


মোঃ গোলাম ওয়ারেছ
২৬ মার্চ, ২০২০ ০৯:১৯ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সাথে অসংখ্য শুভকামনা। শ্রদ্ধেয় প্যাডাগোজি স্যার, রেটার মহোদয়, সেরা কন্টেন্ট নির্মাতাগণ, সেরা উদ্ভাবক, সেরা নেতৃত্ব এবং শিক্ষক বাতায়নের সকল স্যার ম্যাডামগন দয়া করে আমার সি প্রোগ্রামের উপর তৈরীকৃত সাধনার ২৮ নং কন্টেন্ট দেখে সুচিন্তিত মতামত, লাইক ও রেটিং প্রদানের অনুরোধ রইল। করোনার হাত থেকে করুনাময় আল্লাহ আমাদের সবাইকে হেফাজত করুন। সবাই আমরা সচেতন হই। খুব প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হই এবং হাত সাবান দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধৌত করি, বালিশের কভার প্রতিদিন পরিবর্তন করি, পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকি । সবুজ শাকসবজি খাই, ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খাই এবং প্রচুর পানি পান করি। করোনা প্রতিরোধে আমরা সবাই সবাইকে সচেতন করি। মোঃ গোলাম ওয়ারেছ ICT4E জেলা অ্যাম্বাসেডর , বেলকুচি, সিরাজগঞ্জ। সবাইকে ধন্যবাদ।