ভিডিও কনটেন্ট

মাত্র ২০ টাকায় নিজেই হ্যান্ড ওয়াশ তৈরি।

মোহাম্মদ আমিনুল করিম ০১ এপ্রিল,২০২০ ৪১ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ রেটিং ( )

পরজীবীর হাত থেকে বাঁচতে প্রধান কাজ স্যনেটেশন উন্নত করা। যথার্থ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা। খাবারের পূর্বে হাত সাবান বা হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে হাত ভালো করে ধোয়া জরুরী।

অ্যাস্কারিয়াসিস হলো একধরনের রোগ। এটা মূলত গোলকৃমির জন্য হয়ে থাকে। সাধারণত প্রায় ৮৫% মানুষের কোন লক্ষণ প্রকাশ পায় না। করণ সংখ্যায় কম থাকে। আস্তে আস্তে গোলকৃমির সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। লক্ষণ দেখা দেয়। লক্ষণগুলো হলো শ্বাস বা দম কমে যায়। থেকে থেকে জ্বর আসে। পেট ফুলে। পেট ব্যথা করে। ডাইরিয়া হতে পারে ইত্যাদি। গোলকৃমির জন্য কিছু পরজীবী দ্বায়ী। পরজীবীর নাম হলো অ্যাসকেরিস লুমব্রিকডিস(Ascaris lumbricoides)। এই পরজীবী নিজেদের অসাবধানতায় শরীরে প্রবেশ করে। বিশেষত ছোট শিশুরা এর আক্রমণের শিকার। সাধারণতঃ বাচ্চারা বেশি আক্রান্ত হয়। কম বয়সের কারণে সংক্রমণে ওজনহ্রাস, অপুষ্টি ও শিখতে ব্যঘাত ঘটে। গোলকৃমির ডিম প্রাণীর মলের সাথে বাহিরে পরিবেশে আসে। গোলকৃমি দিনে দুই লক্ষ(২,০০,০০০) ডিম দেয়। পরিবেশের সংস্পর্শে ডিম থেকে ৩টি ধাপে লার্ভার জন্ম। লার্ভা বিভিন্ন খাবার, পানির সাথে মিশে। লার্ভা মিশ্রিত খাবার প্রাণী বা মানুষের পাকস্থালীতে আসে। পাকস্থালী থেকে ক্ষুদ্রান্তে পৌঁছে। লার্ভা ক্ষুদ্রান্তে পূর্ণ গোলকৃমিতে পরিণত হয়। গোলকৃমির লার্ভা ক্ষুদ্রান্তে শক্তি অর্জন করে। নাড়িভুড়ির পর্দা ভেদ করে। রক্তে মিসে যায়। রক্তের মাধ্যমে ফুসফুসে পৌছায়। ফুসফুসে অ্যাালভেলি ভেদ করে। ট্রাকিয়ায় চলে আসে। ট্রাকিয়ার ক্বফ ও থুথুর সাথে মিশে। এর জন্য এই পরজীবী রাসায়নিক নিঃসৃত করে। শিশুদের স্নায়ুতন্ত্রের কার্যক্রম কিছুটা ব্যঘাত করে। শিশুদের নিজেদের ক্বফ খেতে উদ্বুদ্ধ করে। পরজীবীর লার্ভা পুনরায় পাকস্থালীতে আসে। শেষে ক্ষুদ্রান্তে। এভাবে শরীরের ভিতরে জীবন চক্র চালায়। আবার বাহিরে ডিম তো আছে। পরজীবীর হাত থেকে বাঁচতে প্রধান কাজ স্যনেটেশন উন্নত করা। যথার্থ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা। খাবারের পূর্বে হাত সাবান বা হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে হাত ভালো করে ধোয়া জরুরী।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোঃ হাফিজুল ইসলাম
০৪ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:০৩ পূর্বাহ্ণ

ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন, বাতায়নের সাথে থাকুন। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ অসংখ্য শুভকামনা । আমার কনটেন্টগুলো দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। আপনার সুস্থতা কামনা করছি ।


মোহাম্মদ আমিনুল করিম
০৪ জুন, ২০২০ ০৭:৫৫ অপরাহ্ণ

আপনার গুরুত্বপূর্ন সময় ব্যায় করে আমার ভিডিও কনটেন্ট দেখার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।


মোঃ গোলাম ওয়ারেছ
০২ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:১৪ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সাথে অসংখ্য শুভকামনা। শ্রদ্ধেয় প্যাডাগোজি স্যার, রেটার মহোদয়, সেরা কন্টেন্ট নির্মাতাগণ, সেরা উদ্ভাবক, সেরা নেতৃত্ব এবং শিক্ষক বাতায়নের সকল স্যার ম্যাডামগন দয়া করে আমার সি প্রোগ্রামের উপর তৈরীকৃত সাধনার ২৮ নং কন্টেন্ট দেখে সুচিন্তিত মতামত, লাইক ও রেটিং প্রদানের অনুরোধ রইল। করোনার হাত থেকে করুনাময় আল্লাহ আমাদের সবাইকে হেফাজত করুন। সবাই লকডাউনে থাকুন। তাহলে আমরা সবাই সুস্থ্য ও নিরাপদ থাকবো। মোঃ গোলাম ওয়ারেছ ICT4E জেলা অ্যাম্বাসেডর , বেলকুচি, সিরাজগঞ্জ। সবাইকে ধন্যবাদ।


মোহাম্মদ আমিনুল করিম
০৪ জুন, ২০২০ ০৭:৫৫ অপরাহ্ণ

আপনার গুরুত্বপূর্ন সময় ব্যায় করে আমার ভিডিও কনটেন্ট দেখার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।


স্বরুপ কুমার দাস
০১ এপ্রিল, ২০২০ ০৬:২৫ অপরাহ্ণ

চমৎকার নির্মাণের জন্য লাইক, কমেন্ট ও রেটিংসহ শুভেচ্ছা ও ভালবাসা রইল । আমার ভিডিও কনটেন্টটি দেখে লাইক ও রেটিং দেবার অনুরোধ করছি।


মোহাম্মদ আমিনুল করিম
০৪ জুন, ২০২০ ০৭:৫৫ অপরাহ্ণ

আপনার গুরুত্বপূর্ন সময় ব্যায় করে আমার ভিডিও কনটেন্ট দেখার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।


মোহাম্মদ আমিনুল করিম
০১ এপ্রিল, ২০২০ ১২:৩২ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ মুক্তপাঠ