খবর-দার

আমাদের মহানবী (সা.) ফুলকে অত্যন্ত ভালোবাসতেন।

মো; ফজলুল হক ১১ জানুয়ারি,২০২১ ২৬২ বার দেখা হয়েছে ১৫৮ লাইক ২৫ কমেন্ট ৫.০০ রেটিং ( ৪০ )

যুগ যুগ ধরে মানবসভ্যতায় ফুলকে ভালোবাসার নিদর্শন হিসেবে দেখা হয়। এজন্যই ফুল ভালোবাসার প্রতীক, পবিত্রতার প্রতীক। 

মহানবী (সা.) ফুলকে অত্যন্ত ভালোবাসতেন। তিনি (সা.) ফুলকে অনেক বেশি ভালোবাসতেন বলেই তার আদরের প্রিয় দুই দৌহিত্রকে ফুলের সঙ্গে তুলনা করেছেন। 

এছাড়া শিশুদের প্রতি মহানবীর (সা.) ভালোবাসা ছিল অগাধ। এজন্য শিশুদেরকেও তিনি ফুলের সঙ্গে উপমা দিয়েছেন।  

হজরত হাসান (রা.) ও হজরত হুসাইনকে (রা.) মহানবী (সা.) সুগন্ধময় ফুলের সঙ্গে উপমা দিয়েছেন। এ থেকে বুঝা যায় মহানবী (সা.) তাদের কতটা ভালোবাসতেন। এ বিষয়ে হাদিসে বর্ণিত হয়েছে মহানবী (সা.) বলেছেন, হাসান ও হুসাইন দু’জন এই পৃথিবীতে আমার দু’টি সুগন্ধময় ফুল। (তিরমিজি)

হজরত আবু উসমান আন নাহদি (রা.) বলেন, রাসূল (সা.) বলেছেন, যদি কাউকে ফুল উপহার দেয়া হয়, সে যেন তা ফিরিয়ে না দেয়। কেননা তা জান্নাত থেকে আনা হয়েছে। (তিরমিজি শরিফ)। এর অর্থ এটা নয় যে ফুলকে ব্যবহার করে আমি নানা অপকর্মে নিজেকে জড়িয়ে ফেলব বরং ফুলের ভালো ব্যবহার আমাদেরকে করতে হবে। সম্ভব হলে আমাদের বাড়িঘরে চারপাশ ফুলের বাগান করে সাজিয়ে রাখতে পারি। 

নিজেদের ঘর, অফিস সবকিছুই আমরা ফুল দিয়ে সুন্দর করে সাজাতে পারি। এতে পরিবেশ যেমন ভালো থাকবে আর মনও ভালো এবং সতেজ থাকবে।হাদিসের শ্রেষ্ঠতম গ্রন্থ বোখারি শরিফে উল্লেখ রয়েছে, রাসুলুল্লাহর (সা.) অভ্যাস ছিল, কেউ তাকে ফুল উপহার দিলে তিনি তা ফিরিয়ে দিতেন না। 

মহানবী (সা.) জান্নাতের রূপ-সৌন্দর্য, সবুজ-সতেজ বাগ-বাগিচার বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেছেন, যখন উপযুক্ত ব্যক্তি জান্নাতের দরজার কাছে যাবে তখন মন জুড়ানো, চোখ ধাঁধানো একটি ফুল দেখতে পাবে। সেই ফুলের ঘ্রাণে বিমোহিত হবে। সে অপলক দৃষ্টিতে নীরব মনে চেয়ে থাকবে। (বোখারি)

আমরা লক্ষ্য করি যে, কোন ফুলের বাগার বা দোকানের সামনে দিয়ে অতিক্রম করলেও মনের মাঝে কেমন জানি একটা অন্য ধরণের অনুভূতির উদয় হয়। যে অনুভূতিটা অন্য কোথাও পাওয়া যায় না। 

এজন্যই মহানবী (সা.) তার প্রিয় জিনিসগুলোকে ফুলের সাথে উপমা দিয়েছেন। 

হজরত আবু সাইদ (রা.) বলেন রাসুল (সা.) বলেছেন, আমার খুব আশঙ্কা হচ্ছে আল্লাহতায়ালা তোমাদের জন্য জমিনের বরকত বন্ধ করে দেবেন। উপস্থিত সাহাবায়ে কেরাম জিজ্ঞাসা করলেন হুজুর জমিনের বরকত কী? হজুর (সা.) বললেন, জমিনের ফুল। সাহাবায়ে কিরামের বাগানেও শোভা পেত ফুলগাছ। আবু খালদাহ (রহ.) বলেন, আবুল আলিয়াহ (রহ.)-কে আমি প্রশ্ন করলাম, হজরত আনাস (রা.) কি নবী (সা.) থেকে হাদিস শুনেছেন? 

আবুল আলিয়াহ (অবাক হয়ে) বলেন, তিনি তো একাধারে ১০ বছর তার সেবা করেছেন এবং তার জন্য নবী (সা.) দোয়া করেছেন। তার একটি বাগান ছিল, যাতে বছরে দু’বার ফল ধরত। ওই বাগানে একটি ফুলগাছ ছিল, যা থেকে কস্তুরীর ঘ্রাণ আসত। (তিরমিজি)এছাড়া রাসুলুল্লাহ (সা.)কে কেউ সুগন্ধিযুক্ত কোনো বস্তু হাদিয়া দিলে তিনি তা ফেরত দিতেন না। হজরত আনাস (রা.) থেকে বর্ণিত, ‘রাসুলুল্লাহ (সা.) কখনো সুগন্ধি-আঁতর ফেরত দিতেন না।’ (তিরমিজি)

আসলে ফুলের সৌন্দর্য মানুষকে পবিত্র হতে প্রেরণা জোগায়। শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি হিসেবে আমাদেরও উচিত, নিজেদের আমল আখলাক ফুলের মত পবিত্র করা। 

আমরা যদি আমাদের হৃদয়কে ফুলের মত পবিত্র করতে পারি তবেই না আমরা আল্লাহর প্রকৃত বান্দা হওয়ার সৌভাগ্য লাভ করব। আল্লাহতায়ালা আমাদেরকে সেই তৌফিক দান করুন, আমিন।(সংগৃহিত)

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
আবু হানিফ
১৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০৮:০৩ পূর্বাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী ও মান সম্মত কনটেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধি করার জন্য ধন্যবাদ। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে লাইক ও রেটিংসহ আপনার মতামত দেওয়ার জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি। http://teachers.gov.bd/content/details/840972


মোঃ আজহারুল ইসলাম
১৫ জানুয়ারি, ২০২১ ০৯:১৮ পূর্বাহ্ণ

খুবই সুন্দর ও চমৎকার উপস্থাপনা করেছেন, ধন্যবাদ স্যার।


মোঃ আবু আব্দুর রহমান সিদ্দিকী
১৩ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:১২ পূর্বাহ্ণ

আপনার আপলোডকৃত কনটেন্টের জন্য নিঃসন্দেহে পূর্ণ রেটিং ও লাইক দিলাম। আজ পর্যন্ত বাতায়নে রীতিমত রাত-দিন লেগে থেকে কনটেন্ট আপলোডের কাজ, উদ্ভাবনের গল্প লিখে, ব্লগ পোস্ট, অন্যের কনটেন্টে লাইক, কমেন্ট, রেটিং দিয়ে যাচ্ছেন এজন্য কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলাধীন জাগরণী বহুমুখী বালিকা উচ্চ বিদ্যাবীথি'র পক্ষ থেকে লাল গোলাপের শুভেচ্ছা আর উষ্ণ অভিবাদন জানাচ্ছি। কনটেন্ট তৈরী ও আপলোডের কাজ আরো বেশী পরিমানে অব্যাহত রাখুন, স্বীকৃতি একদিন না একদিন আসবেই ইনশাল্লাহ।অতঃপর, যদি সম্ভব হয় আমার সদ্য আপলোডকৃত ৯০১ ও ৯০২ নং কনটেন্ট দেখার বিনীত আমন্ত্রন জানাচ্ছি। পাশাপাশি আপনাদের গঠনমূলক মতামত, লাইক ও পূর্ণ রেটিং প্রত্যাশা করছি। শুভ কামনা নিরন্তর।


মোঃ তারেকুন্নবী
১৩ জানুয়ারি, ২০২১ ০১:৪২ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা ও অভিনন্দন। আমার এ পাক্ষিক এর কনটেন্ট দেখে আপনার সুচিন্তিত মতামত ও রেটিং আশা করছি।


১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৫০ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো।


SARA FARIN
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৪৬ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো।


SARA HAQUE
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৪৪ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো।


শীতল কুমার সাহা
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৪৩ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


শরীফুল ইসলাম
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৪০ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


SIddiqur Rahman
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৩৯ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


TONNY FARIHA
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৩৭ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


RAFEKUL ISLAM
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৩৪ অপরাহ্ণ

আল্লাহতায়ালা আমাদেরকে সেই তৌফিক দান করুন, আমিন.


PRANATI DHAR
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৩২ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


NIRANJAN SAHA
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:২৯ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


নিবাস চন্দ্র দাস
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:২৬ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মতিউর রাহমান
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:০৪ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ মোরশেদ আলম
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:০১ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


Md.Mokaddas Ali
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৬:৫৯ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মিহির কুমার দাস
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৬:৫৫ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


Mazada Akter
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:৩০ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত ৫০ তম কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ মাহবুবুল হক ফারুকী
১২ জানুয়ারি, ২০২১ ০৭:২৯ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


লুৎফর রহমান
১১ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:৩৬ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত ৫০ তম কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। কনটেন্ট লিংকঃ https://www.teachers.gov.bd/content/details/836568 Blog link: https://www.teachers.gov.bd/blog-details/588694


দেলওয়ারা বেগম
১১ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:২৭ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা।


হাছনা হেনা
১১ জানুয়ারি, ২০২১ ০৯:২৪ অপরাহ্ণ

ফুল ভালোবাসার প্রতীক, পবিত্রতার প্রতীক।


মোঃ ফজলুল হক
১১ জানুয়ারি, ২০২১ ০৯:১৮ অপরাহ্ণ

আল্লাহতায়ালা আমাদেরকে সেই তৌফিক দান করুন, আমিন.