শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম মনিটরিংয়ের নির্দেশ

মোঃ আফছার আলী প্রাং ১৩ নভেম্বর,২০২০ ১০০ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ ()

করোনার বন্ধে শিক্ষার্থীদের দেয়া অ্যাসাইমেন্ট কার্যক্রম মনিটরিং করতে মাঠ পর্যায়ের শিক্ষা কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। আওতাধীন প্রতিষ্ঠানগুলোতে অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে ফি নেয়া হচ্ছে কিনা, বাড়ির কাজ বা পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে কিনা এবং সার্বিক নির্দেশনা মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম পরিচালনা করছে কিনা সে প্রতিবেদন অধিদপ্তরে পাঠাতে বলা হয়েছে কর্মকর্তাদের। তিন সপ্তাহ পরপর দুই দফায় কর্মকর্তাদের মনিটরিং প্রতিবেদন অধিদপ্তরে পাঠাতে হবে। 

শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে সব আঞ্চলিক পরিচালক, উপ-পরিচালক এবং সব জেলা-উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে এসব নির্দেশনা দিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। সম্প্রতি অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম নিয়ে নানা অনিয়মের বিভিন্ন অভিযোগ নিয়ে দেশের শিক্ষা বিষয়ক একমাত্র ডিজিটাল পত্রিকা দৈনিক শিক্ষাডটকমে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশের পর এ নির্দেশনা দেয়া হল।করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষিত রাখতে সব স্কুল-কলেজ বন্ধ। এ পরিস্থিতে মাধ্যমিক স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা হবে না। কিন্তু পরবর্তী শ্রেণিতে প্রমোশন দেয়া হবে সবাইকে। কোন মার্কিং বা গ্রেডিং দেয়া হবে না। সবাই সমান পাস। এ প্রেক্ষিতে ৩০ দিনের মধ্যে শেষ করা যায় এমন সিলেবাস তৈরি করা হয়েছে। এ সিলেবাসের আলোকে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হচ্ছে। ৬ সপ্তাহে শিক্ষার্থীদের এসব অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে। স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানগুলোতে অ্যাসাইনমেন্ট পাঠানো হয়েছে। কিন্তু মাঠ পর্যায় থেকে বিস্তর অভিযোগ উঠে এসেছে। 

দৈনিক শিক্ষাডটকমে প্রকাশিত প্রতিবেদন ও মাঠপর্যায় থেকে পাওয়া অভিযোগগুলো পর্যালোচনা করে দেখা যায়, কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অ্যাসাইনমেন্টর জন্য জোর করে অতিরিক্ত ফি নিচ্ছেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এ অতিরিক্ত ফি এর পরিমান ৩০০ থেকে ৩০ টাকা। অভিযোগ আছে, অনেকেই অ্যাসাইনমেন্টের নামে অভিভাবকদের জিম্মি করে টিউশন ফি আদায় করছে। ফি পরিশোধ না করলে অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হচ্ছে না। শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মত ঘটানও ঘটেছে অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে। এ পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের দেয়া অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম মনিটরিং করতে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিলো মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের পাঠানো নির্দেশনায় কর্মকতাদের নিজ নিজ আওতাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো পরিদর্শন করে অধিদপ্তরে প্রতিবেদন পাঠাতে বলা হয়েছে। প্রতি তিন সপ্তাহ পর পর এ প্রতিবেদন পাঠাতে হবে। আগামী ২৬ নভেম্বরের মধ্যে প্রথম দফায় তিন সপ্তাহের এবং ২০ ডিসেম্বরের মধ্যে দ্বিতীয় দফায় তিন সপ্তাহের প্রতিবেদন পাঠাতে  

বলা হয়েছে। 

প্রতিবেদনে কি কি বিষয় মনিটরিং করতে হবে সে বিষয়েও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে শিক্ষা কর্মকর্তাদেরর। ১ নভেম্বর থেকে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম শুরু হয়েছে কিনা, অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের প্রতি সপ্তাহে তিনটি অ্যাসাইমেন্ট দেয়া হচ্ছে কিনা, শিক্ষার্থীরা সাদা কাগজে অ্যাসাইনমেন্ট নিজ হাতে করে তা জমা দিচ্ছে কিনা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে অ্যাসাইনমেন্ট জমা ও গ্রহণ করা হচ্ছে কিনা, শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নের সবল বা দুর্বল দিকগুলো লিপিবদ্ধ রাখা হচ্ছে কিনা তা প্রতিবেদনে জানাতে হবে। 

এছাড়াও অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়ন যথাসময়ে শিক্ষার্থীদের কাছে পৌছানো ও তা আবার ফেরত এনে প্রতিষ্ঠানে সংরক্ষণ করা হচ্ছে কিনা, এ কার্যক্রম ছাড়া শিক্ষার্থীদের কোন পরীক্ষা বা বাড়ির কাজ নেয়া হচ্ছে কিনা, বেতরা বা ফি নিয়ে সরকারের নির্দেশ মানা হচ্ছে কিনা তাও জানাতে বলা হয়েছে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের

সূত্র: দৈনিক শিক্ষা

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোঃ মেহেদুল ইসলাম
২২ নভেম্বর, ২০২০ ০৬:২৬ অপরাহ্ণ

র্ণ রেটিংসহ শুভকামনা রইল। সেই সাথে আমার এ পাক্ষিকের কনটেন্ট দেখে রেটিংসহ আপনার সুচিন্তিত মতামত প্রদানের বিনীত অনুরোধ রইলো ।


অচিন্ত্য কুমার মন্ডল
১৫ নভেম্বর, ২০২০ ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ

শুভকামনা রইলো এবং সেই সাথে পূর্ণ রেটিং । আপনার তৈরি কন্টেন্ট আমার দৃষ্টিতে সেরার তালিকা ভুক্ত। সে জন্য আপনাকে একটু সহযোগিতা করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। সেই সাথে কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি। আমার এ পাক্ষিকের কন্টেন্ট ও ব্লগ দেখার ও রেটিং সহ মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। ধন্যবাদ https://www.teachers.gov.bd/content/details/758019 https://www.teachers.gov.bd/blog-details/582529 https://www.teachers.gov.bd/blog-details/581805


মোঃ গোলাম ওয়ারেছ
১৪ নভেম্বর, ২০২০ ০৭:৩৩ পূর্বাহ্ণ

মুজিব জন্মশতবর্ষের শুভেচ্ছা রইল। সুন্দর উপস্থাপনার জন্য শুভকামনা এবং সেই সাথে পূর্ণ রেটিং । সেই সাথে আমার নভেম্বর ২০২০ ইং ১ম পাক্ষিক কন্টেন্ট ও ব্লগ 'ওয়্যারলেস কমিউনিকেশন সিস্টেম (Wireless Communication System) দেখার ও রেটিংসহ মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। ধন্যবাদ


মাকসুদা খাতুন
১৪ নভেম্বর, ২০২০ ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা রইল। সেই সাথে আমার এ পাক্ষিকের কনটেন্ট দেখে রেটিংসহ আপনার সুচিন্তিত মতামত প্রদানের বিনীত অনুরোধ রইলো ।