খুব দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে চাই : প্রধানমন্ত্রী

মোঃ ওবায়দুর রহমান ( সুমন ) ২৭ ফেব্রুয়ারি ,২০২১ ২১ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৪.৮৯ ()

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনা ভাইরাস মহামারী শুরু থেকেই আমরা ভাইরাস মোকাবেলায় যা যা প্রয়োজন সব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। ইতোমধ্যে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমরা আমাদের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের মানুষকে আওতায় আনতে চাই। খুব দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে চাচ্ছি।

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে গণভবনে থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তিনি।

সরকারপ্রধান আরও বলেন, যখন টিকা নিয়ে গবেষণা হচ্ছে তখন থেকেই আমরা খোঁজা শুরু করেছিলাম কোথা থেকে সংগ্রহ করা যায় আমরা আগেই আগাম টাকা দিয়ে টিকার বুকিং দিয়ে রেখেছিলাম। সেজন্যই এত তাড়াতাড়ি টিকাদান কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হয়েছে। আরও ৩ কোটি ডোজ টিকা কেনা হবে।

২০২১ খ্রিষ্টাব্দে বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। সে উপলক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশে তৈরি করেছি। ডিজিটাল বাংলাদেশের মানুষকে ডিজিটাল নিরাপত্তা দেয়ার জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রুখতে এ আইন করা হয়েছে।’

কারাগারে লেখক মুশতাকের মৃত্যুর বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কারো মৃত্যুই কাম্য নয়, কিন্তু সেটিকে কেন্দ্র করে কেউ যেন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে তা নিশ্চিত করতে হবে।

জনগনের দায়িত্বশীলতার কারণে করোনাভাইরাস মোকাবেলা করা সম্ভব হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সর্বস্তরের মানুষ এগিয়ে এসেছেন। আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনগুলোর সবাই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছেন। ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছেন। এজন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

আল-জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি চ্যানেল কি বলছে এটা বড় কথা নয়, দেশবাসীর বিচার করবে কোনটি সত্য কোনটি মিথ্যা কতটুকু সত্য কতটুকু মিথ্যা।

বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়া নতুন প্রজন্মের উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেন সরকার প্রধান। বাংলাদেশের এই অর্জনকে ধরে রেখে নতুন পর্যন্ত তা আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে বলেও আশা প্রকাশ করেন সরকার প্রধান।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন
১১ মার্চ, ২০২১ ০৫:৪২ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন। আবারও ধন্যবাদ।


শামছুন নাহার
২৮ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ০৫:১৮ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইল।


মোঃ মেহেদুল ইসলাম
২৮ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ০২:৪১ অপরাহ্ণ

https://www.teachers.gov.bd/content/details/880238


রমজান আলী
২৮ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ০২:৫৫ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


আব্দুল মাজিদ
২৮ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ০১:২১ পূর্বাহ্ণ

চমৎকার, লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


মোঃ নূরল আলম
২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ১১:৫৩ অপরাহ্ণ

মান সম্মত লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা রইল। আমার বাতায়ন পেইজে আপনাকে আমন্ত্রন রইল।


মোহাম্মদ আমির হোসেন
২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ০৬:৪০ অপরাহ্ণ

এগিয়ে যাই বহুদূর।


লুৎফর রহমান
২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ০৬:২৭ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত ৫৩ তম কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। কনটেন্ট লিংকঃ https://www.teachers.gov.bd/content/details/880562


মোঃ মামুনুর রহমান
২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ০৬:১৭ অপরাহ্ণ

মানসম্মত ও শ্রেণি উপযোগী কনটেন্ট, ভিডিও কনটেন্ট, ব্লগ পোস্ট ও উদ্ভাবনী গল্প তৈরি করে আমাদের প্রিয় শিক্ষক বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি এবং পূর্ণ রেটিং কামনা করছি। পাশাপাশি আমার কনটেন্টগুলোতে বিশেষ করে ২৪/০২/২১ তারিখের ৯ম/১০ম শ্রেণির তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের " কম্পিউটার ও কম্পিউটার ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা " বিষয়ক কনটেন্টটিতে লাইক, কমেন্ট, শেয়ার ও পূর্ণ রেটিং প্রদানের জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি। এছাড়াও সম্মানিত প্যাডাগোজি রেটার ও এডমিন প্যানেল মহোদয়, সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা, সেরা উদ্ভাবক, আইসিটি অ্যাম্বাসেডরবৃন্দ ও সেরা অনলাইন পারফর্মারদের নিকট পূর্ণ রেটিং আশা করছি। বাতায়ন আইডি : mamunggghsc10 , Profile Name : মোঃ মামুনুর রহমান Content Link : https://www.teachers.gov.bd/content/details/889823