রসালো ফল তরমুজের উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ।

সবিতা দেবনাথ ০৯ জুলাই,২০২১ ৩২ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ ()

রসালো এই ফলের প্রায় ৯০ শতাংশই থাকে পানি। তাই গরমে পানির চাহিদা যেমন মেটাতে পারে এই ফল। তাছাড়া তরমুজ স্বাদ ও পুষ্টিতেও অনন্য। পুষ্টিবিদদের মতে, প্রতি ১০০ গ্রাম তরতাজা তরমুজে খাদ্য উপাদান হলোঃ জলীয় অংশ ৯৫.৮ গ্রাম, আমিষ ০.৫ গ্রাম, আঁশ ০.২ গ্রাম, চর্বি ০.২ গ্রাম, শ্বেসার ৬.৫ গ্রাম, ভিটামিন এ ৫৬৯ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি ৬ মিলিগ্রাম, খাদ্যশক্তি ১৬ মিলিগ্রাম, শর্করা ৩.৩ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ১১ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ১২ মিলিগ্রাম, নিয়াসিন ০.১৫ গ্রাম, লৌহ ৭.৯ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি১ ০.০৩ মিলিগ্রাম, বি২ ০.০৪ মিলিগ্রাম। আসুন জেনে নেই তরমুজ শরীরের জন্য কতটা উপকারী।

 

তরমুজের উপকারিতা

 

১.  বিশেষজ্ঞদের মতে, ভিটামিন সি সহ কিছু অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট অ্যাজমা রোধে ভূমিকা রাখতে পারে। তরমুজে আছে ভিটামিন সি ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট অ্যাজমা রোধে ভূমিকা রাখতে পারে।

২.  তরমুজে পানির পরিমাণ অনেক বেশি থাকে, সেই সাথে থাকে আঁশ। তাই তরমুজ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে ও হজমের জন্য উপকারী।

৩.  তরমুজে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি পাওয়া যায়। ভিটামিন সি মানবদেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং সুষ্ঠু রক্ত সঞ্চালনে সাহায্য করে, দাঁতের সমস্যা, চামড়ার সৌন্দর্য, মুখের ঘাঁ, সর্দি, গরম ও ঠান্ডা জ্বর প্রতিরোধে বেশ উপকার করে।

৪.  তরমুজে থাকা লাইকোপেন উপাদানটি সূর্যের আলোর বেগুনি রশ্মির হাত থেকে আমাদের চামড়াকে রক্ষা করে। তরমুজ দেহে চর্বি জমা হওয়ার ব্যবস্থা কমিয়ে দেয়। ফলে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

৫.  তরমুজ অত্যন্ত রসালো ফল বলে মানব দেহের বৃক্ক বা কিডনীর জন্য খুবই উপকারী।

৬.  তরমুজে থাকে বিটা ক্যারোটিন। এ উপাদানটি চোখের নানা সমস্যা দূর করে। চোখকে সুস্থ সবল রাখে। চোখের দৃষ্টি শক্তি প্রখর রাখে।

৭.  তরমুজে প্রাকৃতিক ভাবে অতি অল্প পরিমাণে চর্বি থাকে। তাই পেট ভরে তরমুজ খেলেও ওজন বাড়ে না।

৮.   তরমুজ খেলে অ্যাক্সিডেটিভ স্টেসজনিত অসুস্থতা কমে যায়।

৯.   তরমুজে সিট্রোলিন নামক বিশেষ অ্যামাইনো এসিডের উপাদান রয়েছে। যা মানব দেহের পুরুষের শুক্রাণু ও মহিলাদের ডিম্বানুকে পরিপুষ্ট করে। যৌনশক্তি বৃদ্ধি করে। তাই যাদের যৌন ক্ষমতা কম তারা নিয়মিত তরমুজ খান বেশ উপকার পাবেন।

১০. তরমুজে পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, রক্তের ইনসুলিনকে সুষ্ঠুভাবে কাজ করতে সাহায্য করে। পুষ্টিবিদদের মতে ডায়াবেটিস রোগীরা তরমুজ খেতে পারবেন। তবে নিজ নিজ চিকিৎসকের পরামর্শ মতে।

১১. যারা উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন তারা নিয়মিত তরমুজ খান রক্তের চাপ কমে আসবে। কারণ তরমুজের পটাশিয়াম উচ্চ রক্ত চাপ কমিয়ে দেয়।

 

রাস্তার মোড়ে মোড়ে বা বাজারে খোলা অবস্থায় রাখা কাটা তরমুজ খাবেন না। তরমুজ কেটে ফ্রিজে ভরে রাখবেন না। এতে খাদ্য উপাদান কমে যায়। তাছাড়া তরমুজ কেনার সময় দেখে নিবেন যেন তরমুজ তাজা এবং পাকা হয়। পাকা তরমুজের ওজন তার আকারের চেয়ে বেশী হয় এবং ঠনঠন শব্দ করে।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন
১০ জুলাই, ২০২১ ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ

👉 লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন। আবারও ধন্যবাদ।


আবু নাছির মোঃ নুরুল্লা
১০ জুলাই, ২০২১ ০৮:৪২ পূর্বাহ্ণ

লাইক রেটিং সহ আপনার জন্য রইলো শুভকামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ রইলো।


লুৎফর রহমান
১০ জুলাই, ২০২১ ০৮:১২ পূর্বাহ্ণ

Great work! Thanks for nice content and best wishes including full ratings. Your active participation and submission of your wonderful contents have made the Batayon more enriched. Please give your like, comments and ratings to watch my all contents of this fortnight. pptx https://www.teachers.gov.bd/content/details/1020865 Blog: https://www.teachers.gov.bd/blog-details/610836 Video: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1025441 Publication: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1029791 Batayon ID: https://www.teachers.gov.bd/profile/Lutfor%20Rahman


সন্তোষ কুমার বর্মা
১০ জুলাই, ২০২১ ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ ধন্যবাদ আমার কন্টেন্ট দেখার ও রেটিং দেয়ার জন্যে বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ মেরাজুল ইসলাম
১০ জুলাই, ২০২১ ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

✍️ সম্মানিত, বাতায়ন প্রেমী শিক্ষক-শিক্ষিকা , অ্যাম্বাসেডর , সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা , প্রেডাগোজি রেটার আমার সালাম রইল। রেটিং সহ আমি আপনাদের সাথে আছি। আমার বাতায়ন বাড়িতে আপনাদের আমন্ত্রণ রইলো। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখবেন , নিজে সুস্থ্ থাকবেন, প্রিয়জনকে নিরাপদ রাখবেন। ধন্যবাদ।🌹