এনটিআরসি থেকে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সহকারী শিক্ষক পদে আজ যে ৫১০০০+ জন সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন তাদের সবাইকে অভিনন্দন ।

মোঃ ময়দুল ইসলাম ১৮ জুলাই,২০২১ ৩৭ বার দেখা হয়েছে ১০ লাইক ১৬ কমেন্ট ৫.০০ ()

এনটিআরসি থেকে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সহকারী শিক্ষক পদে আজ যে ৫১০০০+ জন সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন তাদের সবাইকে
অভিনন্দন
। আপনি একটা জব পেয়েছেন এজন্য সর্বপ্রথম আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করুন। আপনার পরিবারের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন এর চেয়ে আনন্দের আর কিছু হতে পারে না।
এই জবটা খুব ভালো। যারা বেকার আছেন তারাতো অবশ্যই জয়েন করবেন আর যারা একই গ্রেডে অন্য সরকারি বা বেসরকারি জব করেন তারা এখানে চলে আসতে পারেন। আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি।
এখানে প্রেসার খুব কম। যে কাজ তা কঠিন কোনো কাজ নয়। নিজের মেধা আর যোগ্যতা প্রমাণ করতে পারবেন। ছুটি আছে, বিনোদন আছে। ছাত্রছাত্রীদের কিছু দিতে পারলে, মন জয় করতে পারলে ওদের অনেক ভালোবাসা আর সম্মান পাবেন। এলাকাবাসীও সম্মান করবে। কর্মক্ষেত্রে ১/২ জন আপনাকে সহ্য নাও করতে পারে এ নিয়ে মন খারাপ করার কিছু নাই (আলহামদুলিল্লাহ আমি চমৎকার কিছু সহকর্মী পেয়েছি) একদিন তারাই আপন করে নিবে। কাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে আপনার মেধা ও যোগ্যতার প্রমাণ দেওয়ার চেষ্টা করবেন। আর ফেসবুকে সিনিয়রদের ২/৩ টা গ্রুপ আছে এগুলোতে জয়েন করবেন বাট কোনো প্রতিক্রিয়ামূলক কমেন্ট বা পোস্ট দেবেন না।
উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিয়োজিত থাকতে পারবেন। ১ম বছর প্রতিমাসে বেতন পাবেন ১২৭৫০, বিএড সম্পন্ন থাকলে 15900 টাকা। সাথে ২৫% বোনাস। খাতা দেখা আর পরীক্ষায় ডিউটি করলে সম্মানী পাবেন। নিজেকে আর পরিবারকে সময় দিতে পারবেন। জবটা এনজয় করতে পারবেন। এই জবের পাশাপাশি অন্য কিছু করার সময় পাবেন।
আমরা চাই এই পোস্টটার এন্ট্রি লেভেল থেকেই প্রথম শ্রেণি হোক। জাতীয়করণ হোক । পূর্ণাঙ্গ বোনাস হোক । অবসর, কল্যাণ বাতিল করে পেনশন চালু হোক । অন্যান্য অনেক বৈষম্য আছে । এ নিয়ে কাজ এগিয়ে চলছে। আমরা সবাই এক হলে ভালো কিছু হওয়া সম্ভব।

২। শিক্ষকতায় কাদের আসা উচিত নয়:
বকবকানি (লেকচার) করতে ভালো লাগে না, তাদের শিক্ষকতায় আসা উচিত নয়, কারণ পেশাটিই বকবকানীর উপর নির্ভরশীল!!
সহজেই মেজাজ হারিয়ে ফেলেন, এমন ব্যক্তির এই পেশায় আসা উচিৎ নয়।
শিক্ষকতা পেশা একটি সেবামূলক পেশা, এজন্য রিটায়ার্ডের পরও সে শিক্ষকই থাকে। তাকে সবাই স্যারই বলে। শিক্ষকতা পেশার সাথে জড়িতগণ অল টাইম স্যার, যেটা অন্য পেশায় নেই।
সুতরাং সেবা করার মানসিকতা না থাকলে এই পেশায় আসা উচিত নয়।
ছাত্রছাত্রীদের মন মানসিকতা বুঝতে পারাটা খুবই জরুরি একটি বিষয়। যেই শিক্ষক যত বেশি ছাত্রছাত্রীদের মন মানসিকতা, জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন সহজেই বুঝতে পারবে, সেই শিক্ষক তত বেশি সফল। অনেক সময় শিক্ষার্থী তার সমস্যা/বুঝতে না পারাটা,শিক্ষককে বুঝিয়ে বলতে পারে না। শিক্ষককে বিষয়টি বুঝে নিতে হয়।
যে সমস্ত শিক্ষকদের এই গুণটি বিদ্যমান নেই, তাদের সফল শিক্ষক হওয়ার সম্ভাবনা কম।
সহজেই বিরক্ত হয়ে যায়, এমন ব্যক্তিদের শিক্ষকতা পেশায় আসা অনুচিত।
বাচ্চা কাচ্চাদের হৈ চৈ পছন্দ করে না! এমন ব্যক্তিদেরও এই পেশায় আসা অনুচিত।
এই পেশায় ১০টা-৪টা এমন কোনো সময় বাঁধা নেই। প্রয়োজন মাফিক সময় দিতে হয়। ছুটির দিন বা অসময় বলে কোনো অজুহাত দেখাতে পারবেন না।
যারা শিক্ষকতা পেশার সুবিধা/অসুবিধা জানে না, তাদেরও এই পেশায় আসা উচিত নয়।
অনেকেই মনে করে গাদাগাদা বেতন, আকাশ সমান সম্মান, বাস্তবে গিয়ে দেখে, খুবই কম বেতন, সংসার চলে না, তখন সারাদিন শিক্ষকদের গ্রুপগুলোতে হায় হায় করে।
আন লিমিটেড ইনকাম যারা করতে চান, কিংবা দ্রুত ইনকামের পরিমাণ বাড়াতে চায়,তাদের জন্যও শিক্ষকতা পেশা নয়।
জীবনে যারা উচ্চভিলাসী, বিলাসী জীবন যাপন করার আকাঙ্ক্ষা পোষণ করেন, তাদের জন্য শিক্ষকতা পেশা নয়।
কঠিন কথাকে সহজ ভাষায় প্রকাশ করতে না পারা কিংবা সহজ ভাষায় মনের ভাব প্রকাশ করতে না পারলে, সেই শিক্ষক থেকে শিক্ষার্থীদের উপকৃত হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ।
টিউশনি বেশিদিন ভালো লাগে না, করা যায় না, বয়স বাড়লে শিক্ষার্থীরা পছন্দও করে না । কথাগুলো বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে বলা ।
শিক্ষক হতে আগ্রহী কিংবা শিক্ষক হওয়ার পর চোখে মুখে অন্ধকার দেখছেন, তাদের উদ্দেশ্য করে লেখা:
(এগুলো একান্তই নিজস্ব মত,একমত পোষন করতেই হবে, এমনটি নয়)
পৃথিবীতে অনেক পেশা আছে। যেখানে প্রচুর ইনকাম করা যায়, কিংবা ব্যক্তিগত জীবনে উন্নতি করা যায়, কিন্তু চাইলেই শিক্ষকতা করা যায় না, সেটার প্রতি প্রেম থাকতে হয়।
সুতরাং শুধু টাকার জন্য এই পেশায় পড়ে থাকবেন না কিংবা আসবেন না,
কোনো উপায় নেই দেখে এ পেশায় আসলেও শিক্ষার্থীদের ক্ষতি হবে, হয় এটা ভালোবাসুন কিংবা বিকল্প ভাবুন।
আপনি যেই চাকরিটা করছেন তা কি আপনার সন্তানকে ট্রান্সফার করে দিয়ে যেতে পারবেন?
উত্তরঃ না ।
যেই বেতন নিচ্ছেন যখন চাকরিটা ট্রান্সফার করবেন তখন আপনার সন্তানরা কি ঐ বেতন থেকে শুরু করবে?
উত্তরঃ না ।
আপনি চাকরি ছেড়ে দেওয়ার পরেও কি এই ইনকামটি আসবে যা আপনি চাকরী করা অবস্থায় পেতেন?
উত্তরঃ না।
সবাইকে মৃত্যু বরণ করতে হবে। আচ্ছা যখন আপনি পৃথিবীতে থাকবেন না তখন কি আপনার ইনকামটি আপনার পরিবার পাবে প্রতি মাসে মাসে?
উত্তরঃ না।
এই সব প্রশ্নের উত্তর যদি না হয় আপনার কাছে, তাহলে সব গুলো প্রশ্নের উত্তর কোথায় হ্যাঁ আছে সেরকম কোনো পেশা বা এই পেশায় থেকেই সেভাবে বিকল্প প্রস্তুত করুন ।
প্রিয় শিক্ষকবৃন্দ আমাদের পক্ষ থেকে আপনাদের অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও
অভিনন্দন
। ভালো থাকুন।
শুভ কামনা
.
ফেসবুক থেকে সংগৃহীত


মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোঃ ফারুক হোসেন
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৯:০৬ অপরাহ্ণ

মানসম্মত কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করায় আপনাকে ধন্যবাদ। লাইক, পূর্ণ রেটিং সহ আপনার জন্য রইলো শুভকামনা। আমার কন্টেন্ট, ব্লগ ও চিত্র দেখে লাইক,পূর্ণ রেটিং ও আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ রইলো।


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১২ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।


মোঃ সাইফুর রহমান
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৬:৪৭ অপরাহ্ণ

চমৎকার উপস্থাপন লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। "উদ্ভিদ টিস্যু " শিরোনামে আমার আপলোডকৃত ৭০ তম কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে আপনার মূল্যবান লাইক, রেটিং, মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ রইল।


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১২ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।


আজিজুল হক
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৬:৪৩ অপরাহ্ণ

সুন্দর প্রেজেন্টেশন তৈরি জন্য শুভকামনা


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১২ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।


লুৎফর রহমান
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৫:২৭ অপরাহ্ণ

Best wishes with full ratings. Sir/Mam. Please give your like comments and ratings to watch my following contents below: pptx https://www.teachers.gov.bd/content/details/1020865 Blog: https://www.teachers.gov.bd/blog-details/612086 Video: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1054236 Publication: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1029791 Batayon ID: https://www.teachers.gov.bd/profile/Lutfor%20Rahman


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১১ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।


সন্তোষ কুমার বর্মা
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৪:৩৮ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ অভিনন্দন ও শুভকামনা আমার কনটেন্ট দেখার জন্য অনুরোধ করছি।


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১১ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।


মোঃ মুজিবুর রহমান
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৪:২০ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১১ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।


জাহিদুল ইসলাম
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৩:৫২ অপরাহ্ণ

আসসালামু আলাইকুম। শ্রদ্ধেয় প্যাডাগজি রেটার মহোদয়, এডমিন মহোদয় সেরা কন্টেন্ট নির্মাতাগণ ও সেরা উদ্ভাবক মহোদয় বাতায়নের সকল স্যার- ম্যাম মহোদয়গণ আমার আপলোডকৃত ৩৪তম কনটেন্ট সকলকে দেখার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। আমার এ পাক্ষিকের কনটেন্ট এ রেটিং করার অনুরোধ করছি। আমার কনটেন্ট লিংকঃ https://www.teachers.gov.bd/content/details/1053143


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১১ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।


মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন
১৮ জুলাই, ২০২১ ০৩:৪৯ অপরাহ্ণ

👉 লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন। আবারও ধন্যবাদ।


মোঃ ময়দুল ইসলাম
২৬ জুলাই, ২০২১ ১২:১১ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ।