=======সকালে লেবু পানি খেলে যে উপকার পাবেন =======

প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী ২১ নভেম্বর,২০২২ ৮২ বার দেখা হয়েছে ১৮ লাইক ৩১ কমেন্ট ৫.০০ (১৬ )

লেবু ছোট একটি ভিটামিন সি জাতীয় ফল হলে এর উপকারিতা কিন্তু মোটেও ছোট বা কম নয়। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে কুসুম গরম পানির সঙ্গে যদি কয়েক ফোঁটা লেবু মিশ্রিত করে খাওয়া যায়, তবে এর অভাবনীয় উপকার আপনি কিছুদিনের মধ্যেই পাবেন।

  আসুন জেনে নেই সকালে লেবু পানি পানের উপকারিতা:-
 

ওজন কমাতে সাহায্য করে
 

আপনি যদি ডায়েট করার চিন্তা-ভাবনা করতে থাকেন, তাহলে লেবু পানিকে আপনার সেরা বন্ধু হিসেবে বেছে নিতে হবে। লেবুতে আছে পলিফেনলস্‌ যা ক্ষুধা নিবারণে সাহায্য করে। এছাড়া খাওয়ার আগে পানি পান করলেও ক্ষুধা কিছুটা কম লাগে। সকালে উঠে যদি আপনার কমলার জুস পানের অভ্যাস থাকে, তাহলে অভ্যাসটি বদলে লেবু পানি পানের চেষ্টা করুন। কারণ কমলার জুসে ক্যালরি থাকে যাতে আপনার ওজন বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ৮-১২ আউন্স নরমাল বা  ঠাণ্ডা পানিতে পুরো একটি লেবুর রস মিশিয়ে নিন। তবে ওজন কমানোর জন্য ঠাণ্ডা লেবুর পানিই বেশি কার্যকরী।
 

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
 

টক জাতীয় যেকোনো ফল, যেমন- লেবুতে আছে ভিটামিন সি যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়াও লেবুতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যার প্রভাবে শরীরে কোনো রোগ জীবাণু সহজে বাসা বাঁধতে পারে না। তাই যেকোনো ধরনের ইনফেকশন বা অসুস্থতা এড়াতে লেবুর কোনো বিকল্প নেই। আর লেবুর খোসায় আছে ক্যালসিয়াম, পেকটিন, ফাইবার ও বিভিন্ন খনিজ পদার্থ যা বিভিন্ন রোগের নিরাময়ে সাহায্য করে।
 

হজম শক্তি বাড়ায়
 

লেবু পানিতে যে এসিড রয়েছে তা খাবার হজম করতে সাহায্য করে। এতে আছে সাইট্রাস ফ্লাভোনইডস্‌ যা পাকস্থলীতে খাবারকে ভেঙে সহজেই হজম করে। বয়সের সাথে সাথে হজম ক্ষমতা কমে যায়। এছাড়াও পানির সাথে কয়েক টুকরা লেবু বা কুচি করা লেবুর ছোলা মিশিয়ে খেলেও আপনি পেকটিনের গুণ পাবেন। পেকটিন হলো এক ধরনের ফাইবার যা ছোলা থেকে পাওয়া যায়। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা যায় যে, ফাইবার হজম শক্তি বাড়াতে বেশ কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। তাই লেবু পানি না খেলেও টুকরা লেবু পানিতে দিয়ে বা লেবুর ছোলা পানিতে দিয়ে খেলে উপকার পাবেন।
 

ভিটামিন সি এর গুণ
 

United States Department Of Agriculture এর মতে, ১/৪ কাপ লেবুর রস থেকে আপনি ২৩.৬ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি পেতে পারেন। ভিটামিন সি-তে রয়েছে বেশ কার্যকরী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরের কোষগুলোকে সুরক্ষিত রাখে। National Institute Of Health এর মতে, এই ভিটামিন কার্ডিওভাস্কুলারজনিত রোগ ও ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। এছাড়াও এটি স্কার্ভি রোগের প্রতিরোধক, যার ফলে মাড়ি থেকে রক্ত পড়ার সমস্যা সমাধান হতে পারে।
 

শরীর হাইড্রেট রাখবে
 

লেবুর গুণ আপনাকে সরাসরি হাইড্রেট রাখবে না। তবে লেবুর স্বাদ এ বিষয়ে পালন করবে এক অনন্য ভূমিকা। শরীরে পানির পারফেক্ট ব্যালেন্স বজায় রাখতে সারাদিনে আপনার প্রচুর পরিমাণ পানি পান করা দরকার। পানিতে কোনো স্বাদ নেই বলেই হয়তবা বারবার খাবার আগ্রহটা কাজ করে না। সেক্ষেত্রে লেবু পানি পানে স্বাদও পাবেন এবং হাইড্রেটও থাকবেন। যদিও প্রতিদিন আপনার শরীরে ৮ গ্লাস পানির চাহিদা থাকে, তবুও অনেক কিছুর উপর ভিত্তি করেই এই চাহিদা কম বেশি হতে পারে। যেমন- আপনার ওজন, কাজের চাপ, চাহিদা এবং আবহাওয়ার উপর নির্ভর করে আপনার শরীরে ঠিক কতটুকু পরিমাণ পানি পরিমিত বলে গণ্য হবে।
 

বয়স ধরে রাখে
 

এখানেও ভিটামিন সি! গবেষকদের মতে, ভিটামিন সি বলিরেখার সম্ভাবনা অনেকটা কমিয়ে আনে। ভিটামিন সি-তে আছে কোলাজেন যা ত্বকের সুরক্ষায় কাজ করে।
 

লিভারের কার্যক্রম সচল রাখে
 

লিভার আপনার শরীরে ফিল্টার হিসেবে কাজ করে। লেবুর সাইট্রাস ফ্লাভোনইডস্‌ লিভার থেকে বর্জ্য ফেলে দিতে ও লিভারের ফ্যাট কমাতে সাহায্য করে। তাই লিভারকে সুস্থ রাখার জন্য লেবু পানি খুব উপকারী।
 

পটাশিয়ামের মাত্রা বাড়ায়
 

সাধারণত পটাশিয়ামের কথা বললেই প্রথমে কলা এবং বিভিন্ন ধরনের শাক-সবজি ও ফলমূলের কথা মাথায় চলে আসে। কিন্তু লেবু থেকেও যথেষ্ট পরিমাণ পটাশিয়াম পাওয়া সম্ভব। পটাশিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে, মাংসপেশীর কর্মক্ষমতা বাড়ায় ও হার্টবিট নিয়ন্ত্রণ করে। তাই আপনার শরীরে পটাশিয়ামের চাহিদা পূরণ হওয়া দরকার। যেহেতু লেবুতে পটাশিয়াম রয়েছে তাই দিনের শুরুতে লেবু পানি পান করে নিলে আপনার শরীরে পটাশিয়ামের চাহিদার কিছুটা পূরণ করতে পারবেন।
 

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে
 

কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা সমাধানেও দারুণ কাজ করে লেবু পানি। সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে হালকা কুসুম গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে পান করে নিন। শুধু লেবুর রস গরম পানি দিয়ে পান করতে খারাপ লাগলে এর সাথে মিশিয়ে নিতে পারেন মধু ও সামান্য লবণ। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার এই ফর্মুলাটি অভাবনীয়ভাবে কাজ করে। তাই সকালে উঠে লেবু পানি গলাধঃকরণ করলে আপনার পেট পরিষ্কার হওয়ার ব্যাপারটা একেবারেই নিশ্চিত।
 

কিডনির পাথর প্রতিরোধ করে
 

কিডনিতে পাথর হওয়ার সমস্যাটি এখন অহরহ দেখা যায়। অপারেশন করে, ওষুধ খেয়ে বা লেজার চিকিৎসার মাধ্যমে এই রোগটি নিরাময় করা যায়। কিন্তু এই রোগটিই যেন না হয় হয় তাই আগে থেকে সাবধানতা অবলম্বন করা ভালো। ডিহাইড্রেশন বা পানির স্বল্পতার কারণে কিডনিতে পাথর জমে। তাই লেবু পানি পান করলে আপনার শরীরে পানির অভাব হবে না এবং কিডনিতে পাথর জমারও সম্ভাবনা থাকবে না। এছাড়া লেবু কিডনি ও পাকস্থলীর পাথর গলাতেও সাহায্য করে।
 

মুখের দুর্গন্ধ হতে দেয় না
 

লেবুতে যে সাইট্রাস আছে তা সহজেই মুখের ভেতর ব্যাকটেরিয়া হওয়ার সম্ভাবনা রোধ করে। আর তাই মুখে দুর্গন্ধ হয় না। তবে লেবুর এসিড দাঁতে অতিরিক্ত পরিমাণ পড়লে দাঁতের এনামেল নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই মাঝে মাঝে স্ট্র দিয়ে লেবু পানি পান করতে পারেন।
 

বিপাকে সাহায্য করে
 

ঠাণ্ডা পানি বিপাকে তুলনামূলক বেশি উপকারী। আর লেবুর খোসা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে যা বিপাক প্রক্রিয়ায় সহায়ক। তাই ঠাণ্ডা লেবুর পানিতে কিছুটা লেবুর খোসা কুচি করে মিশিয়ে খেয়ে নিন।
 

গর্ভবতী মা ও শিশুর জন্য উপকারি
 

গর্ভাবস্থায় মায়ের শরীরে প্রয়োজনীয় সব পুষ্টি উপাদানের চাহিদা পূরণ ছাড়াও গর্ভস্থ শিশুর চাহিদাও পূরণ করতে হয়। সেক্ষেত্রে ভিটামিন সি বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। লেবু পানিতে আছে ভিটামিন সি যা গর্ভবতী মায়ের শরীরের বিভিন্ন ক্ষতিকর ভাইরাস ধ্বংস করবে এবং হাড়ের টিস্যুগুলোকেও মজবুত রাখবে। আর গর্ভে থাকা শিশুও যেকোনো ধরনের রোগ-জীবাণু থেকে মুক্ত থাকবে।
 

ক্লান্তি দূর করে
 

গরমের দিনে আমাদের শরীর প্রচণ্ড ঘেমে যায়। ফলে শরীরে ব্লাড সুগার লেভেল কমে যায় এবং আমরা ক্লান্ত হয়ে যাই। লেবু পানিতে চিনি মিশিয়ে পান করে নিলে ব্লাড সুগার লেভেল বেড়ে যায় এবং ক্লান্তিটা আর থাকে না!
 

ডায়াবেটিকদের জন্য উপকারি
 

লেবুতে যে ফাইবার আছে তা আপনার শরীর ভাঙতে পারে না বলেই ব্লাড সুগার লেভেলে এর জন্য কোনো প্রভাব পড়ে না। Joslin Diabetes Center-এর পরামর্শ অনুযায়ী দিনে ২০-৩৫ গ্রাম ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া দরকার। মাঝারি আকারের একটি লেবুর রস থেকে ২.৪ গ্রাম ফাইবার পাওয়া যায় যা একজন ডায়াবেটিক রোগীর শরীরে ৭-১২% ফাইবারের চাহিদা পূরণ করে।

 

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মো: ফরিদ উদ্দিন
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১২ অপরাহ্ণ

শুভ কামনা স্যার।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


কৃষ্ণা চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:০৯ অপরাহ্ণ

আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


হাছিনা বেগম
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:০৭ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


রাজু চন্দ্র চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:০৩ অপরাহ্ণ

শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


শাহীন আকতার
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:০২ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


এমরান হোসেন
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:৫৯ অপরাহ্ণ

আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


আবুল কালাম আজাদ
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:৫৫ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


দেবি বিশ্বাস
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:৫১ অপরাহ্ণ

শুভেচ্ছা রইল।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


এনামুল হক
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:৪৮ অপরাহ্ণ

আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


মোহাম্মদ আবদুর রহিম
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:৪৫ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


লিটন চন্দ্র দে
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:৪২ অপরাহ্ণ

আপনার জন্য শুভকামনা।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


রুমানা আফরোজ
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:১৩ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা। বাতায়নে এ পাক্ষিকে আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ প্রত্যাশা করছি। আমার কন্টেন্ট লিঙ্কঃ https://www.teachers.gov.bd/content/details/1321411


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


মোছাঃ হোসনে আরা
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:১১ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট, ভিডিও কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে আপনার মূল্যবান লাইক রেটিং সহ মতামত ও পরামর্শ প্রত্যাশা করছি।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


সন্তোষ কুমার বর্মা
২১ নভেম্বর, ২০২২ ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর কন্টেন্ট উপস্থাপন করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


প্রকৌঃ মোঃ শফি উদ্দীন
২১ নভেম্বর, ২০২২ ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ

🌹🌷Excellent! Surely your competency will enrich the ‘Shikkhok Batayon’. You are invited to my_ ppt content: শিক্ষক বাতায়ন (teachers.gov.bd) Video content: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1153040 YouTube Channel: (4091) Shofi Uddin Agro Machinery - YouTube♥️♥️


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


বীণা মিত্র
২১ নভেম্বর, ২০২২ ১০:৩৮ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা। আপনার প্রেজেনটেশন অনেক সুন্দর ,মানসম্মত আপলোড করেছেন। আপনার সফলতা কামনা করি। আমার ৪৭ তম আপলোডকৃত কন্টেন্ট, ব্লক, প্রকাশনা - দেখে আপনার মূল্যবান মতামত দেয়ার বিনীত অনুরোধ রইল। https://www.teachers.gov.bd/content/details/1330187


প্রবীর রঞ্জন চৌধুরী
২১ নভেম্বর, ২০২২ ০৯:১৪ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।