Loading..

উদ্ভাবনের গল্প

০৯ জুন, ২০২৪ ০১:১২ পূর্বাহ্ণ

সহপাঠী বন্ধু, ইতিবাচকতায় হৃদ্যতা

জানাশোনা থেকেই হয় বন্ধুত্ব, আর সেই অভ্যাসের মাধ্যমে আসে সহমর্মিতা। দেশপ্রেম যেমন চাই তেমনি দেশের মানুষ আর তার মূলে ভালো চিন্তা। আমার উদ্ভাবনী গল্পের নাম "সহপাঠী বন্ধু ,ইতিবাচকতায় হৃদ্যতা"।

একজন শিশু স্কুলে আসবার পর থেকেই তার বিকাশ শুরু হয়। শিশু তার শৈশবকালে যে পরিবেশ এবং অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতে পারে, তাতে তার স্কুল এবং সহপাঠীরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমার এই আইডিয়াটি শ্রেণিতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইতিবাচকতা সৃষ্টি কর।  সহপাঠীদের মধ্যে বন্ধুত্বের আর সহমর্মিতার সম্পর্ক দৃঢ় হয়। এটি একটি ইতিবাচক শ্রেণিকক্ষ গড়ে তোলার শক্তিশালী উপায়। শ্রেণিতে আমি শিক্ষার্থীদের কিছু রঙিন কাগজ দিয়েছি। দু'জন করে সহপাঠী পাশাপাশি বসে একজন আরেকজনের ভালো দিকের কথা সেই রঙিন কাগজে লিখবে। অর্থাৎ বন্ধু হিসেবে একজন শিক্ষার্থী তার সহপাঠীকে কেন পছন্দ করবে তা লিখবে। লিখা শেষ হয়ে গেলে জোড়ায় জোড়ায় শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষে সামনে এসে একজন আরেকজনের ভালো দিক উপস্থাপন করবে। এর মাধ্যমে নিজের প্রশংসা শুনে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইতিবাচকতা তৈরি হবে। তারা তাদের ভালো গুণাবলীগুলো বিকশিত করার চেষ্টা করবে। শ্রেণিতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক তৈরি হবে। শিক্ষার্থীরা একে অপরকে সাহায্য ও সহযোগিতা করতে এগিয়ে আসবে। এই ইতিবাচকতা শিক্ষার্থীদের ব্যক্তি জীবনেও প্রভাব সৃষ্টি করবে। এর মাধ্যমে প্রতিটি শিশু একজন ইতিবাচক, দায়িত্বশীল, পরোপকারী নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠবে।