ভিডিও কনটেন্ট

সুভা

মোঃ সিরাজুল আমিন চৌধুরী ১৫ জানুয়ারি,২০২১ ১৬ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ০.০০ রেটিং ( )

জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ

বিষয় – বাংলা (গদ্য)

বিশেষ পাঠ – সুভা

 

১. শিখন ফল-

এই পাঠ শেষে শিক্ষার্থীরা.........

ক. লেখক-পরিচিতি বলতে পারবে

খ. শব্দের অর্থ ও টীকা বলতে পারবে।

গ. ছোটগল্পের আঙ্গিক ও গঠনকৌশল সম্পর্কে বলতে পারবে।

. বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন মানুষের প্রতি সামাজিক দায়বদ্ধতার স্বরূপ

ঙ. প্রকৃতি ও সুভার অভিন্ন রূপের বর্ণনা করতে পারবে।

 

২. লেখক-পরিচিতি-

*   লেখকের নাম-

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

*   জন্ম -

২৫শে বৈশাখ ১২৬৮ সালে (৭ই মে ১৮৬১ খ্রিষ্টাব্দ) কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং পিতামহ প্রিন্স দ্বারকানাথ ঠাকুর।

*   বিচিত্র প্রতিভা-

তিনি একাধারে সাহিত্যিক, দার্শনিক, শিক্ষাবিদ, সুরকার, নাট্য প্রযোজক ও অভিনেতা। কাব্য, ছোটগল্প, উপন্যাস, নাটক, প্রবন্ধ, গান ইত্যাদি সাহিত্যের সকল শাখাই তাঁর অবদানে সমৃদ্ধ।

*   বিশ্বকবি -

১৯১৩ সালে রবীন্দ্রনাথ ‘গীতাঞ্জলি’ কাব্যের জন্য এশীয়দের মধ্যে প্রথম সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। বস্তুত তাঁর একক সাধনায় বাংলা ভাষা ও সাহিত্য সকল শাখায় দ্রুত উন্নতি লাভ করে এবং বিশ্বদরবারে গৌরবের আসনে প্রতিষ্ঠিত হয়।

*   তাঁর রচিত গ্রন্থ-

তাঁর অজস্র রচনার মধ্যে ‘মানসী’, ‘সোনার তরী’, ‘চিত্রা’, ‘কল্পনা’, ‘ক্ষণিকা’, ‘বলাকা’, ‘পুনশ্চ’, ‘চোখের বালি’, ‘গোরা’, ‘ঘরে বাইরে’, ‘যোগাযোগ’, ‘শেষের কবিতা’, ‘বিসর্জন’, ‘ডাকঘর’, ‘রক্তকরবী’, ‘গল্পগুচ্ছ’, ‘বিচিত্র প্রবন্ধ’ ইত্যাদি    

*   মৃত্যু -

২২শে শ্রাবণ ১৩৪৮ সালে (৭ই আগস্ট ১৯৪১ খ্রিষ্টাব্দ) কলকাতায় বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

 

৩. পাঠ-বিশ্লেষণ –

 

৪. পাঠ-পরিচিতি- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সুভা গল্পটি তাঁর বিখ্যাত ‘গল্পগুচ্ছ’ থেকে সংগৃহীত হয়েছে। একজন বাক্প্রতিবন্ধী কিশোরী সুভার প্রতি লেখকের হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা ও মমত্ববোধ গল্পটি অমর হয়ে আছে। সুভা কথা বলতে পারে না। মা মনে করেন এ-তার নিয়তির দোষ, কিন্তু বাবা তাঁকে ভালোবাসেন। আর কেউ তার সঙ্গে মিশে না-খেলে না। কিন্তু তার বিশাল একটি আশ্রয়ের জগৎ আছে। যারা কথা বলতে পারে না সেই পোষা প্রাণীদের কাছে সে মুখর। তাদের সে খুবই কাছের জন। আর বিপুল নির্বাক প্রকৃতির কাছে সে পায় মুক্তির আনন্দ। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর মূলত প্রতিবন্ধী মানুষের আশ্রয়ের জন্য একটি জগৎ তৈরি করেছেন এবং সেইসঙ্গে তাদের প্রতি আমাদের মমত্ববোধের উদ্বোধন ঘটাতে চেয়েছেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

৫. কর্ম-অনুশীলন   

 

 

 

মোঃ সিরাজুল আমিন চৌধুরী

সহকারী শিক্ষক (বাংলা)

মতামত দিন