চিত্র

শব্দের কথা।

আব্দুস সালাম হাওলাদার ০১ জুন,২০২১ ২৭ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ রেটিং ( )

১. শব্দ তৈরি হয় কম্পন থেকে। এই কম্পন থেকে শব্দতরঙ্গ তৈরি হয়। তারপর সেটা বিভিন্ন মাধ্যমে আমাদের কানে এসে পৌঁছালে আমরা শব্দ শুনতে পাই।

২. মূল কম্পনটি যেখান থেকে বা যে মাধ্যমে হয়েছিল, আমাদের কানেও ঠিক একইভাবে কম্পন হয়। এতে করে আমরা বিভিন্ন ধরনের শব্দ শুনতে পাই।

৩. মানুষের চেয়ে অনেক ভালো কানে শুনতে পায় কুকুর। তারা এমন মাত্রার শব্দও দিব্যি টের পায়, যা সম্বন্ধে মানুষ কোনো ধারণাই করতে পারে না!

৪. বিভিন্ন প্রাণী বিপদাপদ টের পায় শব্দের মাধ্যমে। এতে করে বিপদের আগেই সতর্ক হয়ে যেতে পারে তারা।

৫. যেখানে বাতাস নেই, সেখানে শব্দও শোনা যায় না। বায়ুশূন্য মাধ্যমে শব্দের চলাচল সম্ভব নয়।

৭. শব্দের গতিবেগ আলোর চেয়ে কম, ঘণ্টায় ১২৩০ কিলোমিটার।

৮. জলীয় মাধ্যমে শব্দ বায়ু মাধ্যমের চেয়ে চারগুণ গতিশীল।

৯. শব্দতরঙ্গ নিয়ে বৈজ্ঞানিক গবেষণাকে ‘অ্যাকুস্টিকস’ বলা হয়।

১০. বিদ্যুৎ চমকানোর আওয়াজ তৈরি হয় তীব্রভাবে উত্তপ্ত বাতাসের মাধ্যমে, যার চারপাশ ঘিরে থাকে বিদ্যুৎ। এর ফলে সাধারণ গতিবেগের চেয়ে বিদ্যুৎ চমকানোর আওয়াজ অনেক দ্রুত শোনা যায়।

 

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
রাজীব মন্ডল
০১ জুন, ২০২১ ০৬:৫২ অপরাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী ও মানসম্মত কনটেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


আব্দুস সালাম হাওলাদার
০১ জুন, ২০২১ ০৯:৪৯ অপরাহ্ণ

আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ।